রাফি আহাম্মেদ উল্লাসের কবিতা “স্মৃতির পটে”

Spread the love

খোলা ডেস্ক:

কোথাও বুঝি বৃষ্টি হয়ে গেল—-
নাকে এলো সোঁদা মাটির গন্ধ,
ফিরতে ফিরতে চলে গেলাম ছোটো বেলার  গ্রামে–
গেলাম বলা ভুল হবে,যাই -ই তো সব সময়।

এখনো বসি ওই উঁচু বারান্দাটাতে,
ঠাকমা শোনায় পুরাণ সন্ধ্যাবেলায়–
এখনো দুপুর হলে পিয়ারা গাছে উঠি,
বড় পিয়ারাটার লোভে ওই মগ ডালে।

মা বলছে–নামবি কিনা বল?মরবি যে আজ পড়ে,
সেই থেকেই কি উঁচুতে ওঠার সাধ!!
পড়ে যাবার কথা এখন কিন্তু কেউ বলার নেই।

এখনো চোর কাঁটারা জামায় ফোটে,
এখনো শিববাড়িতে ঘন্টা বাজে—
এখনো ভোর বেলায় শিশিরের ওপর,
সূর্যের আলোর হীরে দেখে—-
নাকছাবি পরার শখ জাগে।

এখনো মায়ের চাকি বেলুনের মার—-
চোখের তলায় কালশিটে ফেলে।
এখনো বৃষ্টি ঝরে,দোপাটি ফুলের খসে পড়া বিকেল,
মন-মরা আলো,নিভে যাওয়া রাত,ডাকে নিভৃতে–
এখনো আমার সকাল সাঁঝে,
ওই যে বেলা ডাকে—
এখনো আমার স্মৃতির আমি  অবুঝ মনে হাঁটে।

কবিতাটি লিখেছেন রাফি আহাম্মেদ উল্লাস। তিনি রাজশাহী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে অধ্যায়নরত শিক্ষার্থী।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •